সর্বশেষ সংবাদ
হোম / Featured / ছাত্রলীগ নেতার আইনি লড়াই করতে গিয়ে উচ্চ আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন এড. তৈমূর

ছাত্রলীগ নেতার আইনি লড়াই করতে গিয়ে উচ্চ আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন এড. তৈমূর

ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রাসেল হত্যা মামলার প্রধান আসামী ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের আরেক সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। হত্যা মামলার আসামী এই ছাত্রলীগ নেতার আইনি লড়াই করতে গিয়ে নিজেই উচ্চ আদালতের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন এড. তৈমূর আলম খন্দকার। তৈমূর আলম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি।

গত ১২ জানুয়ারি উচ্চ আদালতে জামিন আবেদন করে হত্যা মামলার আসামী ওই ছাত্রলীগ নেতার জামিন করিয়ে দেন এড. তৈমূর আলম খন্দকার ও এড. আসাদুজ্জামান। তবে উচ্চ আদালতেরই অন্য একটি বেঞ্চে করা জামিন শুনানির তথ্য গোপন করায় সম্প্রতি ওই ছাত্রলীগ নেতার জামিন বাতিলের পাশাপাশি আরিফের দুই আইনজীবী এড. তৈমুর আলম খন্দকার ও মো. আসাদুজ্জামানকে ব্যাখ্যা দাখিলের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালতের বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও জাহিদ সারোয়ারের সমন্বিত বেঞ্চ। পাশাপাশি মামলার তদবিরকারক মাহাতাব উদ্দিনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট আদালতের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চাটার্জী বাপ্পী এ আদেশের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ নির্দেশে ওই দুই আইনজীবী আদালতে ব্যাখ্যা দাখিল করেন। ব্যাখ্যার বিষয়ে এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, আসামির পক্ষে করা আমাদের জামিন আবেদনের ভিত্তিতে হাইকোর্ট আরিফের জামিন মঞ্জুর করেন। কিন্তু সে তথ্য গোপন করে অন্য এক আইনজীবীর মাধ্যমে অপর একটি বেঞ্চে একই ধরনের জামিন আবেদন করেছে বলে আদালত জানতে পারে। এ বিষয়ে আদালত আমাদেরকে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেন। আমাদের ব্যাখ্যার পর আদালত আরিফের জামিন তদবিরকারককে ১০ হাজার টাকা জরিমনা ও আসামির জামিন বাতিল করেছে।

জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ মে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রাসেলকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আরিফকে প্রধান আসামি করে নিহতের পিতা জালাল উদ্দিন বাদি হয়ে মামলা করেন। এই মামলায় তৈমূর আলমের করা আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১২ জানুয়ারি বিচারপতি ফরিদ আহমেদের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ আরিফকে জামিন দেন। এই জামিনের পর রাষ্ট্রপক্ষ জানতে পারে, তথ্য গোপন করে হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের নেতৃত্বাধীন দ্বৈত বেঞ্চে আরিফ একই বিষয়ে আরও একটি জামিন আবেদন করে যা ১২ জানুয়ারি ওই বেঞ্চের কার্যতালিকার ২২৬ নম্বরে ছিল। এরপর রাষ্ট্রপক্ষ আরিফের জামিনের আদেশ প্রত্যাহার চেয়ে ১৩ জানুয়ারি পুণরায় আবেদন করে।

আজকের জনপ্রিয় সংবাদ

মোশাররফ কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সাধারণ সম্পাদক হলেন

কেন্দ্রীয় যুবদলের ১১৪ সদস্যের আংশিক কমিটিতে সহ-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মোশারফ হোসেনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। তিনি …