সর্বশেষ সংবাদ
হোম / Featured / ভূষি চুরির অপরাধে ট্রাক মালিককে ৩ দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত

ভূষি চুরির অপরাধে ট্রাক মালিককে ৩ দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত

চালক ও হেলপারের সহযোগীতায় ভূষি চুরির অপরাধে ট্রাক মালিককে ৩ দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

রিমান্ডপ্রাপ্ত ট্রাক মালিক হলেন- কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব থানার রামানগর এলাকার রতন এর ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩৮)।

বুধবার (৪ নভেম্বর) দুপুরে আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে উঠায় পুলিশ। পরে শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আফতাবুজ্জামান এর আদালত এ রিমান্ডের আদেশ দেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বাদী মো. আলী আজম (৬০) রূপগঞ্জ থানায় আসামির বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে উল্লেখ্য করেন, বাদী বহু বৎসর যাবৎ ভাড়াটিয়া ট্রাক দ্বারা তার ট্রান্সপোর্ট থেকে ঢাকা মদিনা পোল্ট্টি ফিড লিঃ নিমতলী এর বিভিন্ন মালামাল দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিশ্বস্ততার সাথে তার ট্রান্সপোর্টের মাধ্যমে পরিবহন করে আসছে।

উক্ত মদিনা পোল্ট্রি ফিড এর ক্রয়কৃত সোয়া ভূষি পরিবহনের জন্য তার ট্রান্সপোর্টকে ডিও লেটার দিলে তিনি রূপগঞ্জ থানাধীন রূপসী সিটি মিল থেকে উক্ত মদিনা পল্ট্রি ফিডের সোয়া ভূষি যশোর ও বগুড়ায় ট্রান্সপোর্টে দেওয়ার জন্য ট্রাক নং-ঢাকা মেট্রো-ট-১৪-
৯৬৬৫ ও ট্রাক নং-ঢাকা মেট্রো-ট-১৬-০১৭৩,০২টি ট্রাক ভাড়া করে।

প্রথম ট্রাকটির চালক ছিল মো. শাহ আলম (২০) ও হেল্পার ছিল সুজন (২৬)। দ্বিতীয় ট্রাকটির চালক ছিল মো.রিয়াজ (২২) ও মো. মাসুম (২১)। তাদের মাধ্যমে ট্রাক ২টি গত ১১ অক্টোবর রূপসী সিটি মিলে পাঠিয়ে দেয়।

এরপর গত ২২ অক্টোবর ঢাকা মেট্রো-ট-১৪-৩৯ ৬৬৫ রাতে বিবাদী মো. শাহ আলম (২০) তার ট্রাক নিয়ে রূপসী সিটি মিল গেইট থেকে ১৫ টন, ৩০০ বস্তা সোয়া ভূষি যশোর জেলাধীন সদর থানার অধিনস্থ হ্যাপি ফিস ফিড নামীয় প্রতিষ্ঠানে পৌছে দেওয়ার জন্য চালক ও হেল্পার উক্তি ভোরে যশোরের উদ্দেশ্যে রওনা করে ও ঢাকা মেট্রো-ট-১৬-০১৭৩ ট্রাকটি মো. রিয়াজ ১৪ টন, ২৮০ বস্তা সোয়া ভূষি বগুড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

এরপর থেকে পরে চালক মো. শাহ আলম ও মো. রিয়াজের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তারপর বাদী ও বাদীর ছেলে আজমীর (২২) বিভিন্ন স্থানে খোজ খবর নিতে থাকে। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করিয়া উক্ত ট্রাক ও মালামাল পাওয়া যায় নাই। পরে খবর নিয়ে জানতে পারে ২২ তারিখ ভোরে ট্রাক ২টির মালিক দেলোয়ার হোসেনের সহায়তায় চালক মো. শাহ আলম, হেল্পার সুজন, মো. রিয়াজ, মো. মাসুম সহ অপরাপর আসামিরা ২৯ টন সোয়া ভূষি যার মূল্য ১৬ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইতি পূর্বে ট্রাক চুল ও হেলপারদের গত ৩০ অক্টোবর রাত ১০ ঘটিকার সময় বন্দর থানাধীন আকিজ গ্রুপের ময়দা, আটা মিলের মধ্য থেকে গ্রেফতার পূর্বক তাদের হেফাজত থেকে জব্দ করা হয়। সে সময় বর্ণিত আসামিরা ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ট্রাক মালিক দেলোয়ার হোসেন এর নাম প্রকাশ করে।

রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশ অর্জুন বলেন, মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে আসামিকে ৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

আজকের জনপ্রিয় সংবাদ

আওয়ামীলীগ ধারাবাহিক ভাবে ক্ষমতায় থাকায় দেশের মানুষের সঠিক উন্নয়ন হচ্ছে – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

শীতলক্ষ্যা নদীতে অবস্থিত গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার …