সর্বশেষ সংবাদ
হোম / Featured / শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে ৩০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো বি. আই.ডব্লিউ.টি.এ

শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে ৩০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো বি. আই.ডব্লিউ.টি.এ

নারায়ণগঞ্জের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শীতলক্ষ্যা নদীর উভয় তীরেই চলেছে বি.আই.ডব্লিউ.টি.এ’র অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান। বি.আই.ডব্লিউ.টি.এ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর কর্তৃপক্ষের এই অভিযানে বাধা দেয় দখলদাররা।

মঙ্গলবার ১০ নভেম্বর দুপুর ১২ টা থেকে বিকেল ৪টা অবধি বি.আই.ডব্লিউ.টি এ’র নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাহবুব জামিলের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা হয়।

শীতালক্ষার পূর্ব তীরে বন্দর ঘাট এলাকায় অভিযানে একটি সেমিপাকা মার্কেট, সেমিপাকা ঘর, টং দোকানসহ অন্তত ৩০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। তবে আগের দিন মাইকিং করায় বন্দর সেন্ট্রাল খেয়াঘাট এলাকার অর্ধশতাধিক টিনশেড ঘর দখলদাররা নিজেরাই সরিয়ে নেয়।

এদিকে বন্দরের গঙ্গাকুল মৌজায় পীর জাকির শাহের নির্মাণাধীন যুবরাজ মার্কেটের শতাধিক দোকানঘর উচ্ছেদ করতে গেলে অভিযানে বাধা প্রদান করে দখলদাররা। এসময় উভয়পক্ষের মধ্যে হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। পরে দখলদাররা হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ দেখালে বি.আই.ডব্লিউ.টি.এ কর্তৃপক্ষ পিছু হটে।

অভিযান বি.আই.ডব্লিউ.টি.এ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল বলেন, মঙ্গলবার বন্দর সেন্ট্রাল ঘাট থেকে ডিইপিটিসি পর্যন্ত ৩০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। আগের দিন মাইকিং করায় বন্দর সেন্ট্রাল খেয়াঘাট এলাকার অর্ধশতাধিক টিনশেড ঘর দখলদাররা নিজেরাই সরিয়ে নেয়। হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী শীতলক্ষ্যার উভয় তীরে উচ্ছেদ অভিযান চলছে। আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

উচ্ছেদে বাধা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিষয়টা আমাদের জানা ছিলনা। পরবর্তীতে আমরা হাইকোর্টে জবাব দিয়ে রিট নিষ্পত্তি করে অভিযান চালাবো।

অভিযানে এসময় উপস্থিত ছিলেন, বি.আই.ডব্লিউ.টি এ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক শেখ মাসুদ কামাল, উপ পরিচালক মোবারক হোসেন, সহকারী পরিচালক নূর হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

আজকের জনপ্রিয় সংবাদ

আওয়ামীলীগ ধারাবাহিক ভাবে ক্ষমতায় থাকায় দেশের মানুষের সঠিক উন্নয়ন হচ্ছে – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

শীতলক্ষ্যা নদীতে অবস্থিত গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার …